গুগল অ্যাডসেন্স - TechJano

গুগল অ্যাডসেন্স

গুগল অ্যাডসেন্স

গুগল অ্যাডসেন্সে কেমন উপার্জন করা যায়

সিপিসি কিংবা কস্ট পার ক্লিক পদ্ধতিতে গুগল অ্যাডসেন্স নির্ধারণ করে দেবে যে আপনার ওয়েবসাইটে গুগল অ্যাডসেন্সের বিজ্ঞাপন দিয়ে আপনি কত উপার্জন করবেন। এ পদ্ধতিতে ওয়েব পেজে রাখা বিজ্ঞাপনের ওপর ক্লিক পড়লেই নির্দিষ্ট অঙ্কের ডলার কিংবা সেন্ট আপনার অ্যাকাউন্টে চলে আসবে। তবে বিজ্ঞাপনের ওপর একটি ক্লিক পড়লে আপনি কত টাকা পাবেন, তা নির্ভর করবে সিটিআর কিংবা আপনার ওয়েব পেজের ক্লিক থ্রো রেটের ওপর। এবার পুরো বিষয়টি সহজ করার জন্য একটি উদাহরণে যেতে পারি। ধরে নিন, আপনার একটি ওয়েব পেজে আপনি একটি গুগল অ্যাডসেন্সের বিজ্ঞাপন দেওয়ার অনুমতি পেয়ে বিজ্ঞাপন দিয়েছেনও। এবার আপনার ক্লিক থ্রো রেট ১% হওয়ায় প্রতিদিন পেজটি ৪০০ বার দেখা হয় এবং বিজ্ঞাপনের মধ্যে ৪টি ক্লিক পড়ে। এতে করে প্রতি ক্লিকে .২৫ সেন্ট করে আপনার আয় হয় ১ ডলার। এখানে আপনি প্রতি ক্লিকে .২৫ সেন্টের বেশি পাবেন তখনই যখন আপনার পেজটি প্রতিদিন ৪০০ বার দেখার সময় বিজ্ঞাপনের ওপর ৪টি ক্লিকের বেশি পড়বে কিংবা ক্লিক থ্রো রেট ১% থেকে বেড়ে যাবে। এ হিসাবে আপনি যদি দেখেন, ১০ গুণ বেড়ে গিয়ে উক্ত পেজ প্রতিদিন ৪০০০ বার দেখা হচ্ছে, তাহলে দেখার সময় বিজ্ঞাপনের ওপর ৪০টি ক্লিকের কারণে প্রতিদিন আপনার উপার্জন হবে ১০ ডলার। একইভাবে আরও ১০ গুণ বেড়ে পেজটি প্রতিদিন যদি ৪০,০০০ বার দেখা হয় এবং বিজ্ঞাপনটির ওপর ৪০০ ক্লিক পড়ে, তাহলে আপনার এক দিনের উপার্জন হবে ১০০ ডলার। সবশেষে এ বলা যায়, এ হিসাবে আপনার সিটিআর কিংবা ক্লিক থ্রো রেট ১% ঠিক রেখে যদি পেজটি দেখার সংখ্যা বেড়ে যায় এবং একই অনুপাতে বিজ্ঞাপনের ওপর ক্লিকের সংখ্যা বেড়ে যায়, তাহলে আপনার প্রতিদিনের উপার্জনও বেড়ে যাবে।

এবার আসুন, আপনাকে আরও একটি চমকপ্রদ তথ্য দেওয়া যাক। আপনি মনে করছেন, আপনার ওয়েব পেজটিতে প্রতিদিন ভিজিটর ভালোই আসছে এবং আগ্রহও দেখাচ্ছে। কিন্তু পেজের মধ্যে রাখার গুগল অ্যাডসেন্সের বিজ্ঞাপনটির ওপর ক্লিক করতে আগ্রহ দেখাচ্ছে না। তাই গুগল অ্যাডসেন্সের উপার্জন করা আপনার জন্য সত্যই কঠিন ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। না, আপনাকে দুশ্চিন্তা করতে হবে না। গুগল অ্যাডসেন্স এখানে ব্যবস্থা রেখেছে। আপনি এখন সিপিএম অর্থাত্ কস্ট পার ইমপ্রেশন পদ্ধতিতে উপার্জন করতে পারবেন। এ ক্ষেত্র আপনার উক্ত ওয়েব পেজ দেখার ব্যাপারে যদি প্রতিদিন ১০০০ বার আগ্রহ দেখানো হয় অর্থাত্ ১০০০ বার পেজটি শুধু ভিজিট করা হয়, তাহলেই কোনো প্রকার বিজ্ঞাপনের ওপর ক্লিক ছাড়াই আপনি ১ ডলার উপার্জন করতে পারবেন। এভাবে মাসে আপনি ৩০ ডলার উপার্জন করতে পারবেন। আর যদি ভিজিটর ৪০,০০০ হয়, তাহলে আপনি প্রতিদিন ৪০ ডলার করে মাসে ১২০ ডলার উপার্জন করতে পারবেন।

Leave a Comment